শিরোনাম

17 Apr 2021 - 09:19:45 am। লগিন

Default Ad Banner

৫০ টাকার নিচে ‘নামছে না’ আলু

Published on Monday, October 26, 2020 at 5:25 pm 56 Views

এমসি ডেস্ক :  রাজধানীর বিভিন্ন খুচরা বাজারে ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে আলু। তবে ছোট ও কাটা আলু বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৪৫ টাকা করে। আজ সোমবার বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

potato price hikeঅস্থিতিশীল আলুর বাজার

জানা গেছে, মতিঝিলের টিঅ্যান্ডটি বাজার, ফকিরাপুল, খিলগাঁও, মালিবাগ, রামপুরা, মগবাজার ও কারওয়ান বাজারে আলু প্রায় একই দামে বিক্রি হচ্ছে। ভালো আলু প্রতি কেজি ৫০ টাকা আর ছোট ও কাটা আলু ৪৫ টাকা দরে বিক্রি করছেন খুচরা দোকানিরা।

বিক্রেতারা বলছেন, সরকার দুই দফা আলুর দাম নির্ধারণ করলেও পাইকারি বাজারে তার খুব একটা প্রভাব পড়েনি। আড়ত থেকে আলু আগের চেয়ে অনেক বেশি দামে কিনতে হয়, কম দামে বিক্রি করব কেমনে?

কারওয়ান বাজারের খুচরা আলু বিক্রেতা তানশের জানান, পাইকারি বাজারে আলুর দাম এখনো উর্ধ্বমুখী রয়েছে। বাজার মনিটরিং করার সময় পাইকারি বিক্রেতাদের চার্টে কম দাম লেখা হয়, পরে আবার দাম বাড়িয়ে লেখা হয়।

তবে পাইকারি বিক্রেতারা বলছেন, হিমাগার থেকে সরকার নির্ধারিত দামে আলু ছাড়া হচ্ছে না। সেখান থেকে আড়তে আসতেই প্রতি কেজি আলু ৩৫ টাকা পড়ে যায়। এমন অবস্থায় পাইকারি বিক্রেতাদের ওপর দোষ দিয়ে লাভ কী?

potatoesক্ষেত থেকে তোলার পর আলু

সম্প্রতি দেশের পাইকারি ও খুচরা বাজারে হঠাৎ করেই কয়েক গুণ বেড়ে যায় আলুর দাম। এমতাবস্থায় সরকার সাধারণ ক্রেতাদের কথা বিবেচনা করে প্রথমে খুচরা বাজারে প্রতি কেজি আলুর দাম ৩০ টাকা, পাইকারি পর্যায়ে ২৫ টাকা ও হিমাগার পর্যায়ে ২৩ টাকা নির্ধারণ করে দেয়।

ব্যবসায়ীরা ওই দামে নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যটি বিক্রি না করায় কৃষি বিপণন অধিদপ্তর আরেক দফা বাড়িয়ে আলুর নতুন দাম নির্ধারণ করে। সরকার নির্ধারিত নতুন দাম অনুযায়ী, হিমাগার পর্যায়ে প্রতি কেজি আলু ২৭ টাকা, পাইকারি পর্যায়ে ৩০ টাকা ও খুচরা পর্যায়ে ৩৫ টাকায় বিক্রি করা কথা।

এ বিষয়ে কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশনের (ক্যাব) সভাপতি ও দুদকের সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম রহমান বলেন, আলুসহ নিত্যপণ্যের দাম কেন কমছে না, তা সবাই জানেন। এ ক্ষেত্রে সরকারকে আরো কঠোর হতে হবে, বাজার মনিটরিং আরো জোরদার করতে হবে।

ক্রেতা সাধারণের কথা বিবেচনা করে ২৫ টাকা কেজি দরে ট্রাকে করে আলু বিক্রি শুরু করেছে টিসিবি। সরকার নির্ধারণের পরও খুচরা বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যটির দাম না কমায় ক্রেতারা টিসিবির ট্রাক থেকেই দীর্ঘ লাইন দিয়ে আলুসহ বিভিন্ন পণ্য কিনছেন।

বলা হচ্ছে, হিমাগার পর্যায়ে প্রতি কেজি আলুর দর নির্ধারণ করা হয় ২৭ টাকা, সে অনুযায়ী হিসাব করলেও পাইকারি পর্যায়ে অতিরিক্ত ৫০০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে ব্যবসায়ীরা এবং খুচরা বিক্রেতারাও প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। অর্থাৎ শুধু আলু থেকেই কয়েক হাজার কোটি টাকা লোপাট করছে এ সংক্রান্ত সিন্ডিকেট।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *