শিরোনাম

13 May 2021 - 08:36:08 am। লগিন

Default Ad Banner

রংপুর রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ এস আই’র সম্মাননা পেলেন সৈয়দপুর থানার সাহিদুর রহমান

Published on Thursday, October 24, 2019 at 6:44 pm 159 Views

এমসি ডেস্কঃ নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর থানার সাহিদুর রহমান রংপুর রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) হিসেবে সম্মাননা পেয়েছেন। বাংলাদেশ পুলিশের রংপুর রেঞ্জের সতের পুলিশ সদস্যকে সাহসিকতা ও কৃতিত্বপূর্ণ কর্মকান্ডের জন্য সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে শ্রেষ্ঠ হয়েছে এসআই সাহিদুর রহমান।
২৩ অক্টোবর বুধবার দুপুরে রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি অফিসের সম্মেলন কক্ষে ‘মাসিক অপরাধ ও আইন-শৃঙ্খলা পর্যালোচনা সভা’ শেষে কর্মস্পৃহা ও কর্মচাঞ্চল্য বাড়ানোর লক্ষ্যে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।
রংপুর বিভাগের আট জেলায় কর্মরত পুলিশ সদস্যদের গত সেপ্টেম্বর মাসের কৃতিত্বপূর্ণ কর্মকান্ডের জন্য বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য।
শ্রেষ্ঠ সাব-ইন্সপেক্টর নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর থানার সাহিদুর রহমান ছাড়াও আর যারা পুরস্কার পেলেন তারা হলেন- শ্রেষ্ঠ জেলা পঞ্চগড় জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী, শ্রেষ্ঠ সার্কেল পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ সার্কেল এর সহকারি পুলিশ সুপার একরামুল হক সরকার, শ্রেষ্ঠ মাদক ও চোরাচালান মালামাল উদ্ধারকারী কর্মকর্তা লালমনিরহাট জেলার সদর থানার নুর আলম সরকার, শ্রেষ্ঠ ওয়ারেন্ট তামিলকারী অফিসার গাইবান্ধা থানার ফিরোজ হোসেন, শ্রেষ্ঠ এএসআই দিনাজপুর জেলার বিরামপুর থানার আলমগীর হোসেন, শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক ইউনিট কুড়িগ্রাম ট্রাফিক ইউনিটের টিআই জাহিদ সরওয়ার এবং শ্রেষ্ঠ থানা রংপুর জেলার তারাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ জিন্নাত আলী।
এছাড়াও ক্লুলেস খুন মামলার রহস্য উদ্ঘাটনের জন্য রংপুর জেলার মিঠাপুকুর থানার এসআই মিজানুর রহমান, একই জেলার ডিবি’র এসআই মনিরুজ্জামান, কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী থানার এসআই আব্দুল মতিন, আসামী গ্রেফতারে সাহসিকতার জন্য লালমনিরহাটের আদিতমারী থানার এসআই মিজানুর রহমান, মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতারে সাহসীকতার জন্য লালমনিরহাট থানার কনস্টেবল জ্যোতিষ কুমার, একই থানার কনস্টেবল ইমরান পাঠান ও একই জেলার আদিতমারী থানার কনস্টেবল নুরুন্নবী মিয়া, সংঘবদ্ধ চোর চক্রের সদস্যকে গ্রেফতারে গাইবান্ধা বি-সার্কেল এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মইনুল হক, অস্ত্র ও অপহৃত শিশু উদ্ধার, দাগী আসামী গ্রেফতারে দিনাজপুর জেলার বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এটিএম গোলাম রসুল বিশেষ পুরস্কারে পুরস্কৃত হন।
এদিকে মাসিক অপরাধ ও আইন-শৃঙ্খলা পর্যালোচনা সভার পূর্বে সকাল সাড়ে দশটায় একই সভাকক্ষে রেঞ্জের সকল পুলিশ সুপারের উপস্থিতিতে ট্রাফিক ইউনিটের দায়িত্বপ্রাপ্ত টিআইগণকে নিয়ে আইন-শৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন রংপুর রেঞ্জের মাননীয় ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য।
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রংপুর রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ইকবাল হোসেন, রংপুরের পুলিশ সুপার বিপ্লব কুমার সরকার, লালমনিরহাট পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক, কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান, গাইবান্ধার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম, নীলফামারীর পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, আরআরএফ রংপুরের কমান্ড্যান্ট (এসপি) মেহেদুল করিম, রেঞ্জ দপ্তরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ এনামুল হক, মোঃ আব্দুল লতিফ, পিবিআই রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আকতার হোসেন, সিআইডি’র সহকারি পুলিশ সুপার সরোয়ার কবীর সোহাগ এবং রেঞ্জ দপ্তরের সহকারি পুলিশ সুপার (অপরাধ) এবিএম জাহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *