20 Sep 2021 - 11:57:37 am। লগিন

Default Ad Banner

মধ্যপাড়া খনিতে জিটিসি কর্তৃক পাথর উত্তোলনে রেকর্ড

Published on Sunday, March 10, 2019 at 8:38 am 222 Views

এমসি ডেস্ক: দেশের উত্তর অঞ্চলের দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনিতে গত শনিবার ( ৯ মার্চ ) ১ দিনে তিন শিফটে খনির ভূ-গর্ভ থেকে ৬ হাজার ৪৭ মে.টন পাথর উত্তোলন করে সর্বোচ্চ রেকর্ড করেছেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জার্মানীয়া-ট্রেষ্ট কনসোর্টিয়াম (জিটিসি) । ফলে দিনাজপুরের মধ্যপাড়া খনি থেকে দৈনিক পাথর উত্তোলনের নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা সাড়ে ৫ হাজার মে.টন কে ছাড়িয়ে ৫ শত টনের অধিক পাথর উত্তোলন করেছে কোম্পানী।
মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনি সুত্রে পাওয়া খবরে জানা গেছে, দিনাজপুরের মধ্যপাড়া কঠিন শিলা প্রকল্প থেকে দৈনিক (তিন শিফটে) ৫ হাজার ৫ শত মে.টন পাথর উত্তোলনের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে গত ২০০৭ সালের ২০ মে বাণিজ্যিক ভাবে পাথর উত্তোলন শুরু হয়। কিন্তু মধ্যপাড়া গ্রানাইট মাইনিং কোম্পানী লিমিটেড (এমজিএমসিএল) নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় প্রায় ৭ বছর ধরে তিন শিফটে পাথর উত্তোলন কার্যক্রম চালুই করতে পারেনি । ফলে দৈনিক এক শিফটে ৭ শত থেকে ৯ শত মে.টন এর মধ্যে পাথর উত্তোলন সীমাবদ্ধ থাকায় খনিটি লোকসানের মুখে পড়ে বন্ধের উপক্রম হয়। ২০১৪ ইং সালে বেসরকারী সংস্থা জিটিসি খনির দায়িত্বভার গ্রহনের পর খনি উন্নয়নের পাশাপাশি পাথর উৎপাদনকে গুরুত্ব দিয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে তিন শিফট পাথর উত্তোলন চালু করে। বর্তমানে দৈনিক তিন শিফটে পাথর উত্তোলন করে জিটিসি ইতোমধ্যে মাসিক পাথর উত্তোলন ১ লক্ষ ২৫ হাজার মে.টন ছাড়িয়েছে। দৈনিক ৬ হাজার মেট্রিক টনের অধিক পাথর উত্তোলনের এই রেকর্ড পাথর খনিটিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা এখন আর বেশী দুরে নয় বলে মনে করে বেসরকারি কোম্পানী জিটিসি।
জিটিসি সূত্রে জানা যায়, পাথর খনিতে উন্নয়নের ধারাবাহিকতার পাশাপাশি পাথর উত্তোলন বৃদ্ধির কথা মাথায় রেখে দৈনিক পাথর উত্তোলন বৃদ্ধির পাশাপাশি বর্তমানে মাসিক পাথর উত্তোলন ১ লক্ষ ২৫ হাজার মেট্রিক টন ছাড়িয়ে গেছে কোম্পানী। মাসিক উৎপাদনের এই লক্ষমাত্রায় পৌছানোর ফলে জিটিসি তাদের অধীনে কর্মরত খনি শ্রমিকদের বেতন ও ওভার টাইমের সঙ্গে উৎপাদন বোনাসও প্রদান করছে । ফলে উৎসাহ নিয়ে কাজ করছে প্রায় সাড়ে ৭ শত খনি শ্রমিক, অর্ধশতাধিক বিদেশী খনি বিশেষজ্ঞ, অর্ধশত দেশী প্রকৌশলী সহ দেড় শতাধিক কর্মকর্তা কর্মচারী খনির উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।
বর্তমান সরকার জিটিসি এর সাথে মধ্যপাড়া পাথর খনিটির ব্যবস্থাপনা, রক্ষনাবেক্ষন এবং উৎপাদন চুক্তির পর তাদের হাতে পাথর খনির তিন শিফটে পাথর উত্তোলনের এই রেকর্ড সরকারের উন্নয়নের অংশীদারে অবদান রাখতে এবং খনিটিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে জিটিসি অঙ্গীকারাবদ্ধ। মধ্যপাড়া কঠিন শিলা পাথরের এখন ব্যপক চাহিদা। সরকারী ভাবে এখানকার পাথর বিভিন্ন সরকারী প্রতিষ্ঠানে এবং বেসরকারী সংস্থার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নির্মান কাজে ব্যবহার করছেন। এতে সরকার বিপুল পরিমান রাজস্ব পাচ্ছেন। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে জিটিসি সরকার এবং সরকারের খনির সংশ্লিষ্ট মহলের ইতিবাচক পদক্ষেপ আশা করেন মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনি প্রকল্পের এলাকার সচেতন মহল।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *