শিরোনাম

15 Apr 2021 - 01:56:14 am। লগিন

Default Ad Banner

বীরগঞ্জে কেডিএস মোড়ে মোবাইল মারপিট ভাংচুর ঘটনায় থানায় অভিযোগ

Published on Monday, September 28, 2020 at 1:07 am 52 Views

মোঃ আবেদ আলীঃ বীরগঞ্জে কেডিএস মোড়ে মোবাইল মারপিট ভাংচুর ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। উপজেলা শতগ্রাম ইউনিয়নের কিডিএস মোড়ের মোবাইল ব্যবসায়ী ও সার্ভিসং সেন্টারের মালিক আব্দুস সালামের ছেলে শফিকুল ইসলাম অভিযোগ করে জানান গতকাল ২৫ সেপ্টেম্বর' ২০২০ দিন গত সন্ধ্যায় রাসেল ও আখিম মাষ্টারের নেতৃত্বে ১৪-১৫ জনের একটি দল লাঠি-সোটা, লোহার রড নিয়ে অতর্কিত তার দোকানে ঢুকে হামলা চালায় তাকে হত্যার উদ্যেশে এলো পাতাড়ি মারপিট ও ভাংচুর চালায়।

হামালাকারীরা নগদ টাকা, বিক্রয়ের জন্য দোকানের নতুন মোবাইল ১৩টি নগদ টাকাসহ ৯৯ হাজার ৫ শত টাকার মালামাল চুরি ও ক্ষতি সাধন করেছে মর্মে থানায় অভিযোগ করেছে। প্রতক্ষ্যদর্শী খায়রুল ইসলাম বাবু, সমসের আলী, শাহজাহান আলীসহ স্থানীয় বাজারের অনেকে হামলার সত্যতা স্বীকার করেছেন। হিংসাত্মাক এ ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করছেন ঐ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য অশ্বিনী কুমার রায়। তিনি বিষয়টি ইতোমধ্যে শতগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান কেএম কুতুবউদ্দিন কে অবহিত করেছেন মর্মে নিশ্চিত করেন।সজমিনে গিয়ে অভিযুক্ত সৈয়দ আখিম মাস্টার সহ অন্যরা মুখোমুখি হলে তারা জানান আব্দুস সালামের অপর ছেলে শাহা আলম সৈয়দ আকতারের কলেজ পরুয়া নাবালিকা মেয়েকে অপহরন করায় আদালতে মামলা চলছে। ভিকটিম নাবালিকা ১০ দিন হাজতে থাকার পর পরিবারের জিম্মায় বাড়িতে আনা হয়। ভিকটিম কে কঠোর নজর দারিতে রাখা অবস্থায় ২৪ সেপ্টেম্বর তাকে আবারও ঘরের জানালা ভেঙ্গে ২য়বার অপহরন করে নিয়ে পালিয়ে যায়। ফলে অপহৃতার আপন জনেরা বিষয়টি শাহা আলমের ভাই শফিকুলের দোকানে জানতে গেলে অপ্রীতিকর ঘটনাটি ঘটেছে।

শতগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান কেএম কুতুব উদ্দিন জানান, উভয় পক্ষের সাথে আপোষ মিমাংসার জন্য জোর তৎপরতা চলছে। বীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল মতিন প্রধান সংবাদেও সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অভিযোগ পেয়েছি পুলিশ ঘটনাস্থল তদন্ত কওে ব্যবস্থা নিবে।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *