শিরোনাম

14 Apr 2021 - 05:23:33 am। লগিন

Default Ad Banner

বিরামপুরে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিটের অভিযোগে থানায় মামলা

Published on Sunday, October 4, 2020 at 10:44 pm 48 Views

জালাল উদ্দীন রুমী : দিনাজপুর জেলার বিরামপুরের পল্লীতে পূর্ব শক্রতার জেরধরে প্রকিপক্ষের লাঠির আঁঘাতে আনোয়ার হোসেন (৫৫) গুরুতর আহত হয়ে বিরামপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এবিষয়ে গত ২৯ সেপ্টেম্বর বিরামপুর থানার মামলা নং- ৩৩। বাদীর মামলার আর্জি সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন সকাল সাড়ে ১০ টার পর তিনি নিজ কাজে বাড়ি হইতে বাহির হয়ে উপজেলার বিনাইল ইউনিয়নের মলকাহার বাজারে উদ্দেশ্যে যাওয়ার সময় বিবাদী প্রতিবেশি কফিল উদ্দিনের ছেলে রবিউল, নূরু মিয়া, ফারুক হোসেন মৃত ভুরকুটুর ছেলে মমতাজ উদ্দিন ও জমির উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মান্নান এক যোগে লাঠি, কাঠের চলা ও লোহার রড দ্বারা মাথায় ও শরীরে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এ সময় আনোয়ার হোসেনের চিৎকারে পথচারীরা এগিয়ে এসে তাঁকে উদ্ধার করে চার্জার ভ্যানগাড়িতে করে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করিয়ে দেয়। মাথায় শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঁঘাত ও ডানচোখের উপরে কাটা স্থানে বেশ কয়েকটি সেলাই পড়েছে। এবিষয়ে উপজেলার বিনাইল ইউনিয়নের মকবুল হোসেনের ছেলে আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে ৫ জনকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করেছেন। বিনাইল গ্রামের বীর মিক্তিযোদ্ধা মকছেদ আলি জানান, প্রধান বিবাদী রবিউল ইসলাম, তার দুইভাই নুরু মিয়া ও ফারুক হোসেন খুব বধ মেজাজি ছেলে। মমতাজ তাদের ভাড়াটিয়া লোক বটে। প্রতিবেশী জমির মাস্টারের ছেলে বিরামপুর পৌরসভা হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নান খুব লোভি ব্যক্তি। এরা একযোগে যোগসাজসেই এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক (এস আই) শাহাজাহান সিরাজ জানান,বাদী আনোয়্র হোসেনের অভিযোগের সূত্রে তদন্ত পূর্বক সত্যতা প্রমানিত হয়েছে। বিরামপুর থানায় পেনাল কোড ১৮৬০,বেআইনি জনতায় দলবদ্ধ হইয়া পথরোধ করত: সাধারণ ও গুরুত্বর রক্তাক্ত জখম করিয়া হত্যার চেষ্ঠায় ও হুমকি প্রদানের অপরাধে রবিউলসহ ৫ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান মামলা ও ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এলাকার সর্বস্থরের সচেতন মহল নিরিহ আনোয়ার হোসেনের উপর বর্বচিত ঘটনার সাথে জড়িত দোষি ব্যক্তিদের দ্রুত গ্রেফতার পূর্বক শাস্তির জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছেন।।

 

 

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *