17 Jan 2021 - 09:34:04 am। লগিন

Default Ad Banner

বিরামপুরে জেএসসি পরীক্ষার ১০০ খাতা জব্দ ভাড়া করা শিক্ষার্থী দিয়ে জেএসসি পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন

Published on Tuesday, November 26, 2019 at 1:03 pm 79 Views

জালাল উদ্দীন রুমীঃ দিনাজপুরের বিরামপুরে ভাড়া করা শিক্ষার্থী দিয়ে সম্প্রতি হয়ে যাওয়া জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষার বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বিষয়ের খাতা দেখার অভিযোগে ১’শ খাতা জব্দ করা হয়েছে। জব্দকৃত খাতাসমুহ বিরামপুর থানায় সংরক্ষিত রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুর আলম।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার আর্দশ হাইস্কুলের সামনে জিয়াউর রহমান নামের এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নূর আলম ও যুব উন্নয়ন অফিসার জামিল উদ্দিন পুলিশসহ ওই খাতাগুলো জব্দ করেন।

জানা গেছে, বিরামপুর পৌর শহরের আদর্শ স্কুল পাড়ার বাসিন্দা ফুলবাড়ি উপজেলার জয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ের শিক্ষক সাহানুর রহমান সদ্য সমাপ্ত জেএসসি পরীক্ষার ২৫০টি খাতা মূল্যায়নের জন্য দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ড থেকে গ্রহণ করেন। কিন্তু তিনি নিজে খাতা মূল্যায়ন না করে প্রতিবেশি জিয়াউর রহমানের বাড়িতে ২৫০টি খাতা মূল্যায়নের জন্য দিয়ে যান।

জিয়াউর রহমানের স্ত্রী দিলরুবা বেগম বলেন, শিক্ষক সাহানুর রহমান ২৫০টি খাতার মধ্যে মূল্যায়ন শেষে ১৫০টি খাতা নিয়ে গেছে এবং অবশিষ্ট ১০০টি খাতা গত সোমবার নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।

এই খাতা নিয়ে যাওয়ার পর শিক্ষক সাহানুর রহমানের স্ত্রী বিরামপুর আদর্শ হাইস্কুলের শিক্ষিকা শাহনাজ বেগমের খাতা গুলোও দিয়ে যাওয়ার কথা রয়েছিল।

জিয়াউর রহমানের স্ত্রী দিলরুবা বেগম আরো জানান, তার জেএসসি পরীক্ষা দেওয়া পুত্র অনিক ও নার্সারী পড়–য়া শিশুপুত্র আবরার ঐসব খাতা মূল্যায়ন করছে। শিশুদের দিয়ে খাতা মূল্যায়নের ফলে সত্যিই মূল্যায়ন হচ্ছে নাকি অবমূল্যায়ন হচ্ছে তা নিয়ে দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নুর আলম বলেন, জব্দকৃত খাতাগুলো সিলগালা করে বিরামপুর থানায় পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান বলেন, জব্দকৃত খাতাগুলো দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে থানায় জমা রাখা হয়েছে। এই বিষয়ে বিরামপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। যার নং-১০০৫

জানতে চাইলে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, বিষয়টি শুনেছি। তদন্ত সাপেক্ষে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে জব্দকৃত খাতা মূল্যায়ন বা ফলাফলে কোন অসুবিধা হবেনা।

 

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *