20 Sep 2021 - 11:06:26 am। লগিন

Default Ad Banner

বদরগঞ্জে গৃহবধূকে অপহরণের পর ধর্ষণ: ধর্ষক রেয়াজুল গ্রেফতার

Published on Tuesday, August 6, 2019 at 4:53 am 309 Views

বদরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি: রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের ঘাটাবিল এলাকার খিয়ারপাড়ার নিজ বাড়ির সামনে থেকে এক গৃহবধূকে অপহরণের পর পৌরশহরের একটি বাড়িতে আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়। বুধবার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূকে অপহরণ করা হয়। রোববার কৌশলে ওই গৃহবধূ অপহরণকারিদের কবল থেকে উদ্দার করে বদরগঞ্জ থানা পুলিশ। এ ঘটসায় পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে মূল হোতা রেয়াজুল ইসলাম(৪৭)কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। বর্তমানে ওই গৃহবধূ গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিকে রোববার রাতে খিয়ারপাড়ার কয়েকশ’ নারী-পুরুষ রেয়াজুলের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে শহরে বিক্ষোভ করেছেন।
মামলা সুত্রে জানা যায়, ওই গৃহবধূর ১২বছর পূর্বে বিয়ে হলেও পরিবারে ছেলে সন্তান না থাকায় তার বাবা জামাইসহ তাকে বাড়িতেই রেখে দেন। এরপর তাদের ঘরে দু’সন্তানেরও জন্ম হয়। এ অবস্থায় তার প্রতি কুদৃষ্টি পড়ে প্রতিবেশী অবেজ উদ্দিনের ছেলে রেয়াজুল ইসলামের। সে প্রায়ই ওই গৃহবধূকে নানাভাবে উত্ত্যক্ত করত। ওই গৃহবধূ বিষয়টি স্বামীসহ পরিবারের অন্যান্যের জানালে রেয়াজুল ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং তাকে অপহরণসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়। ওইদিন সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূ বাড়ির উঠানে বের হলে রেয়াজুল কৌশলে তাকে অপহরণ করে। এরপর সে ওই গৃহবধূকে নিয়ে যায় পৌরশহরের ডাক্তারপাড়ায়। সেখানে আনারুল নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে আটকে রেখে ওই গৃহবধূর উপর পাশবিক নির্যাতন করে রেয়াজুল। এভাবে তিনদিন চলার পর ওই গৃহবধূ কৌশলে বাড়িতে পালিয়ে আসেন। এ সময় তিনি অসুস্থ থাকায় পরিবারের লোকজন তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। কিন্তু তার শারীরীক অবস্থার মারাত্মক অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বর্তমানে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রোববার ওই গৃহবধূ তার বাবার মাধ্যমে বদরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। যাতে রেয়াজুলের বিরুদ্ধে অপহরণসহ তাকে ধর্ষণের কথা উল্লেখ করেছেন। এ ছাড়া পৌরশহরের ডাক্তারপাড়ার আনারুলের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ আনা হয়েছে। পুলিশ ওইদিনই অভিযোগখানাকে মামলা হিসেবে রেকর্ড করে মূলহোতা রেয়াজুলকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।
বদরগঞ্জ থানার ওসি আরিফ আলী জানিয়েছেন- গ্রেফতারকৃত রেয়াজুলকে আদালতের মাধ্যমে রংপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া আনারুলকে ধরতে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
অপরদিকে রোববার রাতে খিয়ারপাড়ার কয়েকশ’ নারী-পুরুষ রেয়াজুলের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে শহরে বিক্ষোভ প্রদর্শণের পাশাপাশি বদরগঞ্জ থানার ওসি’র সাথে সাক্ষাত করেছেন। তারা অবিলম্বে আনারুলকেও গ্রেফতারের জোর দাবী করেছেন।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *