শিরোনাম

15 Apr 2021 - 02:21:24 am। লগিন

Default Ad Banner

পার্বতীপুরের পল্লীতে প্রকৌশলী মজনুর রহমানের ছাদ কৃষি স্বপ্ন দেখাচ্ছে

Published on Sunday, May 3, 2020 at 7:24 am 152 Views

লিমন হায়দারঃ মোটর বাইক যোগে পার্বতীপুর থেকে সড়ক পথে ফুলবাড়ীতে যাবার সময় ভবানীপুর পার হয়ে শেরপুর(তেলিপাড়া) পৌঁছলে দেখা মিলবে প্রকৌশলী মজনুর রহমানের ১ তলা ভবনের ছাদে অত্যন্ত গোছানো একটি ছাদ কৃষি প্রকল্প। ছাদকৃষি দেখতে সাংবাদিক এসেছে শুনে বাড়ীর অন্যান্য সদস্যরা বেশ উৎফুল্ল।প্রকৌশলীর বড় ছেলে সোজা নিয়ে গেলেন তার বাবার হাতে রোপণকৃত সাজানো ছাদকৃষি প্রকল্পে।এর ঠিক ৫ মিনিট পরেই হাজির হলেন অবঃ প্রকৌশলী মজনুর রহমান। পরিচয় পর্ব শেষে তিনি ঘুরে-ঘুরে দেখালেন তার রোপনকৃত ছাদকৃষি প্রকল্প।এসময় তিনি জানালেন,বিভিন্ন দেশি-বিদেশি ফার্মে কাজ করতে গিয়ে এই ছাদকৃষির চিন্তাটি তার মাথায় আসে। এখন অবসর সময়, পাশাপাশি বয়সও হয়ে গেছে। সময় কাটানোর জন্য এই উদ্দ্যগ।অবশ্য প্রথমে ছেলের বউ কিছু চারা এনে এই ছাদকৃষির সুচনা করেন।পরে আমি সেটি প্রকল্প হিসেবে গ্রহণ করি।আমার ছেলে প্রথমে এটি নিরুৎসাহিত করেছিল।এখন সে এই ছাদকৃষি দেখে বেশ খুশি। এখানে ভুট্টার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রজাতির ফল যেমন- মাল্টা, আঙুর,ডালিম,পেয়ারা,বরই ও গাজর চাষ হচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্ন প্রজাতির ফুল চাষের সঙ্গে শাক - সবজিও চাষ হচ্ছে। যেমন, টমেটো, ঢেঁড়স, বেগুন করলা,চালকুমড়া, লাউ,শসা ও মরিচ।এছাড়াও এখানে লেবু পুদিনা পাতা ও মেহেদীরও চাষ হচ্ছে। তিনি আরও জানালেন,ছাদকৃষি প্রকল্পটি ব্যায়বহুল নয়।আপনার বাড়িতে ছাদকৃষি থাকলে বাজার খরচও যেমনি বাঁচবে,তেমনি কীটনাশক বিহীন খাবারও নিয়মিত পাবেন। আমার অবসর সময়ের প্রায় পুরোটাই এখানে দেই।ভবিষ্যতে এই ছাদকৃষি প্রকল্পটি সম্প্রসারণেরও পরিকল্পনা আছে।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *