03 Dec 2021 - 09:34:38 pm। লগিন

Default Ad Banner

তিস্তা চুক্তি নিয়ে আগের অবস্থানে অনড় ভারত : জয়শঙ্কর

Published on Tuesday, August 20, 2019 at 5:39 pm 318 Views

এমসি  ডেস্ক: তিস্তা চুক্তির বিষয়ে ভারত আগের অবস্থানে অনড় আছে বলে জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। আজ মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্র পর্যায়ের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান।

আজ বেলা ১১টার দিকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে জয়শঙ্করের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শুরু হয়। প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে চলা এ বৈঠকে তিস্তা চুক্তিসহ অমীমাংসিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।

এর আগে নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলেই তার সঙ্গে তিস্তা চুক্তি হবে। সেই অঙ্গীকারে ভারত এখনো অনড়।

বৈঠক শেষে জয়শঙ্কর বলেন, দুই দেশের জন্য লাভজনক হয় এমনটা বিবেচনায় নিয়ে ৫৪টি নদীর অভিন্ন পানিবণ্টনের বিষয়ে একটি ফর্মুলা বের করতে বাংলাদেশ-ভারত রাজি হয়েছে। তিস্তা চুক্তি বিষয়ে নরেন্দ্র মোদি যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তাতে অনড় ভারত। সেটা নিয়ে কাজ করছে সরকার।

আলোচনায় তিস্তার পানিবণ্টন নিয়ে কোনো অগ্রগতি আছে কিনা জানতে চাইলে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমাদের একটি প্রতিশ্রুতি রয়েছে। এর কোনো পরিবর্তন হয়নি।’

এসময় যোগাযোগ, জ্বালানি ও বাণিজ্য বৃদ্ধিতে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করবে বলেও জানান জয়শঙ্কর। একই সঙ্গে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনে ভারতের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

আসামের নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) হলে ওই তালিকায় থেকে বাদ পড়া লোকজনকে বাংলাদেশের পাঠানোর বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে। এ নিয়ে জানতে চাইলে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এটি একান্তভাবে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।’

আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ধানমন্ডি-৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এর পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাদুঘর পরিদর্শন করেন তিনি। বেলা ১১টায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে যোগ দেন জয়শঙ্কর।

ভারতের বিজেপি সরকার দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এটাই প্রথম ঢাকা সফর। তিনদিনের সফর শেষে আগামী বুধবার ঢাকা ত্যাগ করবেন জয়শঙ্কর।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *