26 Jan 2021 - 12:31:10 am। লগিন

Default Ad Banner

জনতার মুখোমুখি আতিকুল, সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতি

Published on Tuesday, December 1, 2020 at 11:59 pm 25 Views

এমসি ডেস্ক :   নির্বাচনে দেয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী নগরবাসীর সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফেসবুক লাইভে এসেছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। সেখানে তিনি জনগণের কাছ থেকে বিভিন্ন অভিযোগ ও মতামত নিয়েছেন। পাশাপাশি সেগুলো সমাধান করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন বলেও জানিয়েছেন।

dncc meyor atiq fb liveফেসবুক লাইভে মেয়র আতিকুল ইসলাম, উপস্থাপনা করেন চিত্রনায়ক ফেরদৗস

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, আগামী ১ জানুয়ারি থেকে ‘সবার ঢাকা’ নামক একটি অ্যাপস চালু করা হচ্ছে। সেটির মাধ্যমে নগরবাসী সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন সেবা নেয়াসহ জানাতে পারবেন সমস্যা ও অভিযোগ। পরে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দীর্ঘ প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে চলমান এই লাইভে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম নিয়ে নগরবাসীর বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটি একটি কঠিন ও বাস্তবমুখী সমস্যা। সবাই চায় ক্লিন সিটি, গ্রিন সিটি এবং প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক নানা উদ্যোগে এই স্বপ্ন দেখিয়েছেনও। স্বপ্ন বাস্তবায়নের চেষ্টাও করেছিলেন।

ঢাকা শহর অপরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠেছে উল্লেখ করে মেয়র বলেন, অনেক উন্নয়ন-আধুনিকায়ন হয়েছে, রাজউক ও অন্যান্য সংস্থা বড় বড় ভবন নির্মাণ করেছে। কিন্তু বর্জ্য ফেলার কোনো জায়গা তৈরি করেনি। শহর পরিচ্ছন্ন রাখা সবার দায়িত্ব। সবাই যদি সচেতন হই, তাহলেই ঢাকা সুন্দর হবে।

dncc logo 1

‘পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে ডিএনসিসি আধুনিক ও স্বয়ংক্রিয় যন্ত্র ব্যবহার করছে। রোড সুইপার দিয়ে সড়ক ঝাড়ু দেয়া এবং ড্রেন সাকার দিয়ে নালা পরিষ্কার করা হচ্ছে। ফলে এখন আর হাত দিয়ে এসব কাজ করতে হয় না। বর্জ্যকেও সম্পদে পরিণত করার কাজ চলছে। আমিনবাজার ল্যান্ডফিলে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের প্ল্যান্ট নির্মাণ প্রকল্পের কাজ একনেকে পাশ হয়েছে।’

মশার উপদ্রবের সমাধানের ব্যাপারে তিনি বলেন, ঢাকা শহরে মশা আছে এবং সেটা অস্বীকার করা যাবে না। অনেকে মশামুক্ত ঢাকা বাস্তবায়ন সম্ভব কি না তা জানতে চায়। তবে এটা সম্ভব না হলেও মশা নিয়ন্ত্রণে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। মশার ওষুধ আমদানিতে ২২ বছরের সিন্ডিকেট ভেঙে দেয়া হয়েছে। এখন ডিএনসিসি নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় মশার ওষুধ ক্রয় করছে।

‘আমার কী হবে? এটা না ভেবে আমাদের কী হবে?, এটা নিয়ে সবাইকে ভাবতে হবে।’

এ ছাড়া জলাবদ্ধতা সমস্যা, ভাঙা রাস্তাঘাট মেরামত, সড়কবাতি স্থাপন, স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে বিভিন্ন কর প্রদান, খেলাধুলা ও বিনোদনের জন্য মাঠ-পার্ক নির্মাণসহ বিভিন্ন সমস্যার ব্যাপারে আলোচনা করেন এই নগরপিতা। পাশাপাশি প্রতি মাসে এমন লাইভ অনুষ্ঠান আয়োজনেরও প্রতিশ্রুতি দেন।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *