20 Sep 2021 - 10:28:17 am। লগিন

Default Ad Banner

আবরারের অসমাপ্ত অধ্যায় পড়ে আছে টেবিলে

Published on Tuesday, October 8, 2019 at 2:45 pm 138 Views

 

 

 

 

 

 

এমসি ডেস্কঃ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা আবাসিক হলের ১০১১ নং কক্ষে থাকতেন আবরার। ছাত্রলীগ নেতারা রুম থেকে ডেকে নেয়ার সময় অঙ্ক করছিলেন আবরার।

আবরারের ১০১১ নম্বর রুমে তার পড়ার টেবিলে অঙ্ক খাতাটি উন্মুক্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে।

তিনি ইলেক্ট্রিক মেসিনারি ফান্ডামেন্টালস বইয়ের ৫৯ পৃষ্টার কনটিনিউয়াস টাইম সিস্টেম সাফটার-২ অধ্যায় অনুশীলন করছিলেন।

সোমবার রাত ৮টার দিকে এই বই পড়ার সময় তাকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়।

তার এক সহপাঠী জানিয়েছে, ডেকে নেয়ার সময় অঙ্ক করছিলেন আবরার। ছাত্রলীগ নেতাদের ডাকে সাড়া দিয়ে গণিতের খাতাটা খোলা রেখে তাদের সাথে চলে যান আবরার।

মঙ্গলবার সকালে আবরারের রুমে গিয়ে দেখা যায়, জায়নামাজ বিছানায় পড়ে আছে। টেবিলে পড়ে আছে পটেটো চিপস, টিস্যু পেপার, কলমদানীতে কিছু খুচরা টাকা এবং বিছানায় পড়ে আছে বিদ্যুৎ সংযোগ লাগানো মোবাইল চার্জার।

আবরার সাহিত্য পড়তে খুব ভালবাসতেন বলে জানান রুমমেটরা। রবীন্দ্র রচনাসমগ্র, সাধারণ জ্ঞান চর্চার কিছু বই, বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় রচনাসমগ্রসহ আরো কিছু সাহিত্য বই দেখা যায়। নিয়মিত আরবি লেখাপড়া চর্চাও করতেন তিনি। তার পড়ার টেবিলে বিভিন্ন খাতা খোলে দেখা যায়।

রুমমেটদের কিছু জিজ্ঞাসা করতেই তারা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

আবরারের রুমের বড় ভাই মিজানুর রহমান  বলেন, ‘রোববারে আমি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে টিউশনি থেকে ফিরি। আসার পর আবরার সালাম দেয়। আমি পোশাক পাল্টিয়ে ওয়াশরুমে যাই। পরে দেখি কয়েকজন এসে তাকে নিয়ে গেল। এই তার সাথে আমার শেষ দেখা। এই বলে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।’

শেরে বাংলা হলের আবাসিক ছাত্ররা বলেছেন, রোববার রাতে হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে ডেকে নিয়ে ‘শিবিরকর্মী’ সন্দেহে জেরা করার পর ক্রিকেট স্ট্যাম্প দিয়ে ছাত্রলীগের কয়েকজন আবরারকে পেটান। এই ঘটনায় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ এ পর্যন্ত নয় জনকে আটক করেছে পুলিশ।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *