18 Jan 2021 - 12:27:57 am। লগিন

Default Ad Banner

আইন শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি মাদক ও চোরাকারবারী অভিযানে রেকর্ড সৃষ্টি করেছেন বিরলের ওসি এটিএম গোলাম রসুল

Published on Sunday, October 13, 2019 at 12:38 pm 121 Views

দুলাল হোসেনঃ আইন শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধিতে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন দিনাজপুরের বিরল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এটিএম গোলাম রসুল। প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাসহ মাদক ও চোরাকারবারি বিরোধী অভিযানে ৩ মাসে চোরাচালান, মাদক, অস্ত্র, ওয়ারেন্ট ও চাঞ্চল্যকর খুনের আসামী গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এছাড়াও সামাজিক সচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। গত ৩০/০৫/২০১৮ তারিখ হতে ৩১/০৮/১৯ তারিখ পর্যন্ত ১৫ মাসের ১৩৬টি চোরা চালান মামলায় ১৯০ জন আসামী গ্রেফতার, ৩ হাজার ৯শ ১৩ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার। ২১৫টি মাদক মামলায় ২৩৪ জন আসামী গ্রেফতার। ৩৬.৯ লিটার মদ, ১ হাজার ৮’শ ২১ পিস ইয়াবা, ১১ কেজি ৩৬গ্রাম গাঁজা, ৫৫.৬ গ্রাম হেরোইন, ৪’শ ৬০ লিটার চোলাই মদ, ১’শ ২২ বোতল এ্যালকোহল ও ১০ পিস অ্যাম্পল আটক করেন।
এছাড়াও ৩টি অস্ত্র, ৬ রাউন্ড গুলিসহ ২ জনকে আটকের পাশাপাশি ৩টি অস্ত্র মামলা দায়ের করা হয়। জিআর ও সিআর মুলে ৩৬২টি ওয়ারেন্ট মামলার তামিল করে ১১ জনের সাজা হয়। এছাড়াও ওসি গোলাম রসুল এই অল্প সময়ের মধ্যে ৫০৬টি নিয়মিত মামলা রুজু করেন। এর মধ্যে ৪৩৬টি মামলা নিস্পত্তি হয়। শুধু তাই নয়, এই সাহসী অফিসার বিরলের চাঞ্চল্যকর ৬টি খুনের মামলায় ৮ জন আসামীকে গ্রেফতার করেন। এসব মামলার রহস্য উৎঘাটন ও প্রকৃত আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছেন। ধর্ষণের সকল মামলায় সব আসামীকে দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতার ও দোষীদের আদালতে সোপর্দ করেন। আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় মাদক বিরোধী অভিযান, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং বিষয়ে নিয়মিত অভিযানের পাশাপাশি টার্গেট স্থাপন, চেক পোষ্ট স্থাপন, ৪টি স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং, ওপেন হাউজ ডে’র মাধ্যমে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করা অব্যাহত রেখেছেন। ১৫টি অপহরণ মামলায় তাৎক্ষনিক ভিকটিমকে উদ্ধারসহ আসামী গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছেন। মাদক মামলার আসামী গ্রেফতারের পর রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদসহ ধর্মীয় অনুশাসন এবং নৈতিকতার বিষয়ে সম্যক ধারনা প্রদান করছেন নিয়মিত। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রকৃত আসামীকে শনাক্ত করে আইনের আওতায় নিয়ে এসেছেন অনেককে।
ওসি এটিএম গোলাম রসুল আইন শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি মাদক ও চোরাচালান বিরোধী অজস্র অভিযানে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ- মাদার তেরেসা সম্মাননা, নেহেরু পুরস্কার, জেনারেল ওসমানী গোল্ডেন অ্যাওয়ার্ড, শের-এ-বাংলা স্বর্ণ পদক, ন্যানসন ম্যান্ডেলা পিচ অ্যাওয়ার্ড, ইবনে সিনহা অ্যাওয়ার্ড ও মাহত্মা গান্ধী গোল্ড মেডেল পুরস্কার পেয়েছেন। এছাড়াও তিনি দিনাজপুর জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হন। কথা হয় ওসি এটিএম গোলাম রসুলের সাথে। তিনি জানান, বিরল একটি বৃহত থানা । এখানে পর্যাপ্ত লোক বলের অভাব রয়েছে। এই সিমাবদ্ধতার মধ্যেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যে জিহাদ ঘোষণা করেছেন তা বাস্তবায়নে আমরা বিরল থানা পুলিশ সচেষ্ট। পাশাপাশি এখানকার রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সুশিল সমাজের সহযোগিতা পেলে আশাকরি খুব অল্প সময়ের মধ্যে মাদক মুক্ত করতে পারবো বিরল থানাকে।

Default Ad Banner

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *